লিখেছেনঃ
2019-09-22BDT16:23 ১১ বছর আগের অানিকাকে আমি খুব হেইট করি।   প্রথম কোন মেয়ের প্রতি ভালো লাগা অনুভব করতে পারি অানিকা কে দেখে। এর আগে আমার কখনো এভাবে কাউকে ভালো লাগেনি। আমি জানতামও না কিভাবে মেয়েদের সাথে কথা বলতে হয়। কলেজ বয়সে যা হয় আর কি ভালো লাগার পর থেকেই ওর ব্যাপারটাই মাথায় কাজ করতো সবসময়। প্রায় খাতায় ওর নাম লিখতাম, বন্ধুরা টের পেলো, কোন না কোন ভাবে ওর সাথে লেগে ছিলাম যদিও সেভাবে কথা বলার সুযোগ হয়নি। অনেক ভাবেই অানিকার  কাছে নিজের কথা নিয়ে যেতে চেয়েছি কিন্তু অানিকা কখনোই এত সহজলভ্য ছিল না। অনেক চেস্টা করেও অানিকার সাথে যোগাযোগটা রাখতে পারি নি। এর পর প্রায় এক বছর কেটে গেছে আমার। এক বছর পর কোন এক মজার ঘটনার জের ধরে অানিকা আমার জীবনে আবার এল, টের পেলাম উপরে নিশ্চয় কেউ আছেন। আমরা তখন প্রায় কথা বলতাম, একটু একটু করে সম্পর্ক টা ভালো হতে লাগলো, অানিকা জানতো আমি একজনকে খুব ভালবাসি। এর পর নিজের পুরটা দিয়ে আনিকাকে ভালবাসার কথা বলার চেস্টা করেছি। একদিন বলে দিলাম মানুষ টা সে। আনিকা কিছু না বলে ফোন কেটে দিলো। এর পরের আধা ঘন্টা আমার জিবনের সবচেয়ে উদ্বিগ্ন সময় ছিল। আধা ঘন্টা পর আনিকার সাথে কথা হোল। বুঝতে পারলাম আমার হয়ে গেছে !!   এর পরের সময়টা ছিল আমার জীবনের সবচেয়ে সুন্দর সময়। আমরা এত এত সময় একসাথে পার করেছি কোথাও সকালে বসলে বিকেল হয়ে গেলে টের পেতাম না। এভাবেই আমার ভালবাসার দিন পার হয়েছে। --------------------------------------------------------------------------- আনিকা, নাফিস কে কখন এত ভালবাসালম টেরই পেলাম না। যখন আমি পুরা দুনিয়াতে নাফিস ছাড়া আর কাউকে নিয়ে ভাবতেই পারতাম না, নাফিসকে নিয়ে আমি স্বপ্নের রাজ্যে ভাসছিলাম, ওকে ছাড়া দিনগুলো একা কাটানো সম্ভব হচ্ছিল না ঠিক তখনি বাসায় জানতে পেরে আমাকে প্রায় ১১ মাস বন্দি থাকতে হয়। ৬ মাস আমি নাফিসের সাথে ১ সেকেন্ড কথা বলতে পারি নি, ১১ মাসে একবার দেখা করতে পারি নি। আমার দিন কিভাবে কেটেছে এটা শুধু উপরওয়ালা আর নাফিস ছাড়া কেউ জানেনা।   সেই নাফিসকে এখনো কোন গুরুত্বপূর্ণ পরিক্ষা দিয়ে, কোন কাজ শেষ করে আমার মন খুঁজে আর প্রতিবারই তাকে গেইট এর বাইরে অপেক্ষারত অবস্থায় পাই।   আমাদের বিয়ে হয় মসজিদে। দুজন কবুল বলার পর নাফিস এক গুচ্ছ ফুল নিয়ে আসে আমার কাছে আর ভরা মজলিসে আমকে জরিয়ে ধরে।   আমার প্রেমিক, আমার স্বামী, আমার সবচেয়ে কাছের বন্ধু নাফিস ৫১৭ মার্চ ১৪, ২০১৭ ০৮:৪৭ অপরাহ্ন ২ বছর পূর্বে

১১ বছর আগের অানিকাকে আমি খুব হেইট করি।

 

প্রথম কোন মেয়ের প্রতি ভালো লাগা অনুভব করতে পারি অানিকা কে দেখে। এর আগে আমার কখনো এভাবে কাউকে ভালো লাগেনি। আমি জানতামও না কিভাবে মেয়েদের সাথে কথা বলতে হয়। কলেজ বয়সে যা হয় আর কি ভালো লাগার পর থেকেই ওর ব্যাপারটাই মাথায় কাজ করতো সবসময়। প্রায় খাতায় ওর নাম লিখতাম, বন্ধুরা টের পেলো, কোন না কোন ভাবে ওর সাথে লেগে ছিলাম যদিও সেভাবে কথা বলার সুযোগ হয়নি। অনেক ভাবেই অানিকার  কাছে নিজের কথা নিয়ে যেতে চেয়েছি কিন্তু অানিকা কখনোই এত সহজলভ্য ছিল না। অনেক চেস্টা করেও অানিকার সাথে যোগাযোগটা রাখতে পারি নি। এর পর প্রায় এক বছর কেটে গেছে আমার। এক বছর পর কোন এক মজার ঘটনার জের ধরে অানিকা আমার জীবনে আবার এল, টের পেলাম উপরে নিশ্চয় কেউ আছেন। আমরা তখন প্রায় কথা বলতাম, একটু একটু করে সম্পর্ক টা ভালো হতে লাগলো, অানিকা জানতো আমি একজনকে খুব ভালবাসি। এর পর নিজের পুরটা দিয়ে আনিকাকে ভালবাসার কথা বলার চেস্টা করেছি। একদিন বলে দিলাম মানুষ টা সে। আনিকা কিছু না বলে ফোন কেটে দিলো। এর পরের আধা ঘন্টা আমার জিবনের সবচেয়ে উদ্বিগ্ন সময় ছিল। আধা ঘন্টা পর আনিকার সাথে কথা হোল। বুঝতে পারলাম আমার হয়ে গেছে !!

 

এর পরের সময়টা ছিল আমার জীবনের সবচেয়ে সুন্দর সময়। আমরা এত এত সময় একসাথে পার করেছি কোথাও সকালে বসলে বিকেল হয়ে গেলে টের পেতাম না। এভাবেই আমার ভালবাসার দিন পার হয়েছে।

---------------------------------------------------------------------------

আনিকা,

নাফিস কে কখন এত ভালবাসালম টেরই পেলাম না। যখন আমি পুরা দুনিয়াতে নাফিস ছাড়া আর কাউকে নিয়ে ভাবতেই পারতাম না, নাফিসকে নিয়ে আমি স্বপ্নের রাজ্যে ভাসছিলাম, ওকে ছাড়া দিনগুলো একা কাটানো সম্ভব হচ্ছিল না ঠিক তখনি বাসায় জানতে পেরে আমাকে প্রায় ১১ মাস বন্দি থাকতে হয়। ৬ মাস আমি নাফিসের সাথে ১ সেকেন্ড কথা বলতে পারি নি, ১১ মাসে একবার দেখা করতে পারি নি। আমার দিন কিভাবে কেটেছে এটা শুধু উপরওয়ালা আর নাফিস ছাড়া কেউ জানেনা।

 

সেই নাফিসকে এখনো কোন গুরুত্বপূর্ণ পরিক্ষা দিয়ে, কোন কাজ শেষ করে আমার মন খুঁজে আর প্রতিবারই তাকে গেইট এর বাইরে অপেক্ষারত অবস্থায় পাই।

 

আমাদের বিয়ে হয় মসজিদে। দুজন কবুল বলার পর নাফিস এক গুচ্ছ ফুল নিয়ে আসে আমার কাছে আর ভরা মজলিসে আমকে জরিয়ে ধরে।

 

আমার প্রেমিক, আমার স্বামী, আমার সবচেয়ে কাছের বন্ধু নাফিস


বিষয়ঃ গল্প | ট্যাগসমূহঃ গল্প ব্যক্তিগত কথাকাব্য ঝালমুড়ি [ ৫১৭ ] 517 [ ২ ] 2
  • শেয়ার করুনঃ
পাঠিয়ে দিনঃ

ব্লগারঃ আসিফ আহমেদ

ব্লগ লিখেছেনঃ ৫ টি
ব্লগে যোগদান করেছেনঃ ২ বছর পূর্বে

২ টি মন্তব্য ও প্রতিমন্তব্য

অর্বাচীন উজবুক

March 16, 2017 12:18 PM , ২ বছর পূর্বে
ভাল লাগসে... :)
প্রতিমন্তব্য (লগইন)

আসিফ আহমেদ
Mar 16, 2017 04:26 PM , ২ বছর পূর্বে
???

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করবার জন্য আপনাকে লগইন করতে হবে।
ব্লগের তথ্য
মোট ব্লগারঃ ৬৬ জন
সর্বমোট ব্লগপোস্টঃ ৯৩ টি
সর্বমোট মন্তব্যঃ ১২২ টি


ব্লগ | হিউম্যানস অব ঠাকুরগাঁও-এ প্রকাশিত সকল লেখা এবং মন্তব্যের দায় লেখক-ব্লগার ও মন্তব্যকারীর। কোন ব্লগপোস্ট এবং মন্তব্যের দায় কোন অবস্থায় 'ব্লগ | হিউম্যানস অব ঠাকুরগাঁও' কর্তৃপক্ষ বহন করবে না